Featuredরাজনীতি

*আপনাদের কোনো নির্দেশ এসেছে কি ?আমি নাকি গ্রেপ্তার হচ্ছি, তাহলে ধরেই ফেলা হবে ?*

*আপনাদের কোনো নির্দেশ এসেছে কি ?আমি নাকি গ্রেপ্তার হচ্ছি, তাহলে ধরেই ফেলা হবে ?** গাজীপুর সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলম কে ইতিমধ্যে তার মেয়র পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে সংবাদ প্রকাশ পেয়েছে। আর তাকে নিয়ে এখনো বেশ আলোচনা চলছে। এমনকি তার বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ উঠে আসছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সেই মামলা তাকে যে কোনো সময় গ্রেফতার করা হতে পারে মনে করছেন অনেকে। আর এবার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাকে জাহাঙ্গীর আলম ফোন করেছেন বলে সংবাদ প্রকাশ পেয়েছে। তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তার সঙ্গে বেশ কিছু কথা বলেছেন। এই বিষয়ে বিস্তারিত সংবাদ প্রকাশ পেল।*

*বুধবার দুপুর। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তার মোবাইল ফোনে একটি কল আসে। নম্বরটি দেখে তিনি একটু নড়েচড়ে বসেন।অতঃপর ওপাশ থেকে জানতে চাওয়া, ‘ভাই, কেমন আছেন? আমি তো ভালো নেই। চারিদিকে শুনছি আমি যখন-তখন গ্রেপ্তার হচ্ছি। আপনাদের কোনো নির্দেশ এসেছে কি না? তাহলে ধরেই ফেলা হবে?’*

*উদ্বিগ্ন কণ্ঠের কথাগুলো গাজীপুরের সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন ওই কর্মকর্তার কাছে ফোন দিয়ে এভাবেই তার গ্রেপ্তার আ’শঙ্কার কথা জানতে চান।*

*বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহান মুক্তিযু”দ্ধ নিয়ে ক’টূ’ক্তি করার অভিযোগে গত শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) আওয়ামী লেীগ থেকে তাকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়। তিনি গাজীপুর মহানগন আওয়ামী লগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। একই সঙ্গে দলে তার প্রাথমিক সদস্যপদও বাতিল করা হয়। ওই দিন রাতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় সরকার বিভাগকে চিঠি দেন।*

*বহিষ্কারের পর থেকে মেয়র জাহাঙ্গীর আর সিটি করপোরশেন কার‌্যালয়ে যাননি। তিনি তার বাড়িতেই অবস্থান করেন। তার মেয়র পদ থাকা নিয়ে আগে থেকেই সংশয়ে ছিলেন। তবে বুধবার তার মধ্যে প্রবল গ্রেপ্তার আ’ত’ঙ্ক তৈরি হয় বলে জানা গেছে।*

*এদিকে আজ জাহাঙ্গীর আলম মেয়র পদ থেকে বরখাস্ত হয়েছেন। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, জায়গা দখলসহ বিভিন্ন অভিযোগে জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ পেয়েছে মন্ত্রণালয়। তাই তাকে মেয়র পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আর সিটি করপোরেশনে তিন সদস্যের প্যানেল মেয়র গঠন করা হয়েছে।*

*জাহাঙ্গীরের ফোন সম্পর্কে জানতে চাইলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওই কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, জাহাঙ্গীর তাকে ফোন করে জানতে চান তিনি গ্রেপ্তার হচ্ছেন কি-না।*

*তবে তিনি জবাব দেননি। গণমাধ্যমকে কর্মকর্তাটি বলেন, ‘আমি তার প্রশ্নের কোনো জবাব দিইনি। এ সময় তিনি (জাহাঙ্গীর) নিজেই বলেন- ‘শুনছি আমাকে যখন-তখন গ্রেপ্তার করা হবে। আমি এখন কী করতে পারি?’ এ প্রশ্নেরও কোনো উত্তর না দিয়ে ফোন রেখে দেন কর্মকর্তাটি।  অন্য প্রশ্নের জবাবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এই কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তাকে অবশ্যই আইনের আওতায় আসতে হবে।’*

*এদিকে মঙ্গলবার জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে রাজবাড়ীর-১ নম্বর আমলি আদালতে মামলা করেন বাংলাদেশ মানবাধিকার সোসাইটি রাজবাড়ীর পৌর শাখার সভাপতি শশি আক্তার। আদালতের বিচারক সুমন হোসেন পিবিআই ফরিদপুরকে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন।*

*বাদীপক্ষের আইনজীবী মেহেদী হাসান জানান, মামলায় মেয়র জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযু’দ্ধ প্রসঙ্গে উস’কা’নিমূলক বক্তব্য দেওয়ায় অভিযোগ আনা হয়েছে।*

*জানা গেছে, দল থেকে বহিষ্কার হওয়ার পর নিজ বাসায় থেকে সিটি করপোরেশনের জরুরি কাজ সারেছেন জাহাঙ্গীর। গত সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবস রবিবার থেকে নগর ভবনে যাননি তিনি। নগর ভবন ও বিভিন্ন আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে গুরুত্বপূর্ণ ফাইল করপোরেশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা তার বাসভবনে নিয়ে যান। তিনি সেসব ফাইলে স্বাক্ষর করেছেন।*

*আজ বৃহস্পতিবার বিকালে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী। বলেন, গাজীপুরের মেয়র পদ থেকে জাহাঙ্গীর আলমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আজকের মধ্যেই এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি হবে। সেখানে একজনকে ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে।*

*তিনি আরও বলেন, জমি দখলসহ তার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ মন্ত্রণালয়ে জমা হয়েছে। অভিযোগগুলো প্রমাণিত হলে তাকে মেয়র পদ থেকে অপসারণ করা হবে। এর আগে গাজীপুর সিটি করপোরেশনে তিনজন প্যানেল মেয়র নিয়োগের কথা জানান স্থানীয় সরকার মন্ত্রী। তারা হলেন আসাদুর রহমান কিরণ, আব্দুল আলিম মোল্লা ও আয়েশা আক্তার। *

*উল্লেখ্য, গত কয়েক মাস আগে জাহাঙ্গীর আলমের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে। আর সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরার সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিয়ে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মধ্যেই ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।*

*তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহান মুক্তিযু”দ্ধ নিয়ে ক’টূ’ক্তি করেছেন বলে অভিযোগ ওঠে। এরপর তাকে গত কয়েক দিন আগে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়। আর এরপর তার বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ উঠে আসছে।*

Related Articles

Back to top button